কম্পিউটার রিপেয়ারিং করতে দেওয়ার আগে করণীয়।

কম্পিউটার রিপেয়ারিং করতে দেওয়া আমাদের প্রত্যেক কম্পিউটার ব্যবহারকারী কে দিতেই হয় বিভিন্ন সমস্যায়। ইলেক্ট্রিনিক্স যন্ত্রপান্ত্রি মানে এক সময় কিছু না কিছু সমস্যা হবেই আর কম্পিউটার ব্যবহারেও এটি হওয়া স্বাভাবিক। কিন্তু আমরা অনেকেই কম্পিউটার রিপেয়ারিং করতে দেওয়া আগে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গুলো নিতে ভুলে যায়। অসর্তক অবস্থায় কম্পিউটার রিপেয়ারিং করতে দিলে আপনি নিজের বিপদ নিজেও ঢেকে আনতে পারেন! আপনার প্রাইভেসি নষ্ট হতে পারে এছাড়াও আরো সমস্যা থাকতে পারে।

কম্পিউটার রিপেয়ারিং করতে দেওয়ার আগে করণীয় বিষয় গুলোঃ

আমরা যারা কম্পিউটার ব্যবহার করতে ভালোবাসী বা নিজের অফিসের কাজে অথবা অন্য কাজে ব্যবহার করে থাকি তারা চাই আমাদের কম্পিউটার থাকা প্রত্যেক জিনিস গুলো যেন সেফ থাকে। কম্পিউটার রিপেয়ারিং করতে দেওয়া আগে আমাদের যেসব কমন ও গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলোর প্রতি নজর দেওয়া উচিত এবং কেন উচিত তা নিয়ে আলোচনা করা হলো।

১। ডাটা ব্যাকআপ নেওয়া – কম্পিউটার রিপেয়ারিং এ দেওয়ার আগেঃ

কম্পিউটারে আমাদের প্রয়োজন বিভিন্ন ফাইল থাকে সেটা হতে পারে গান, মুভি, টিউটোরিয়াল বা অন্য কিছু। কম্পিউটার সমস্যা অনেক ধরনের হতে পারে কেউ উইন্ডোজ দিতে পারে না তাই কাস্টমার কেয়ারে নিয়ে যায়, কেউ কোন হার্ডওয়্যার জনিত সমস্যার জন্য নিয়ে যায় কেউ বা অন্য কোন সমস্যার জন্য। যে যেই কারণে কম্পিউটার রিপেয়ারিং করতে দেয় না কেন আমাদের উচিত প্রয়োজনি ডাটা অর্থ্যাৎ নিজেদের ছবি, ভিডিও, প্রয়োজনীয় ফাইল গুলো কপি বা কাট করে রাখা।

কারণ কম্পিউটার রিপেয়ারিং করার সময় যদি আপনার উইন্ডোজ দেওয়া প্রয়োজন পরে তাহলে সি ড্রাইভে প্রয়োজনীয় ফাইল থাকলে তা মুছে যাবে আবার অনেক সময় হার্ড ডিস্ক ভুলবস্ত ডিলিট হয়ে যেতে পারে। তাই আপনারা খেয়াল করে দেখবেন সার্ভিস সেন্টারে লেখা থাকে যে “কম্পিউটার রিপেয়ারিং করা কালীন কোন ডাটা নষ্ট হয়ে গেলে তারা দায়ী থাকবে না” । তাই নিজের প্রয়োজনীয় ডাটা গুলো ভালোভাবে অন্য কোন জায়গা রেখে দেন পেন ড্রাইভ বা ক্লাউড ড্রাইভে।

২। প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার ও গেম চেক করা

কম্পিউটার মানে তার ভেতরে থাকবে নানা ধরনের নানান কাজে সফটওয়্যার থাকবে স্বাভাবিক বিষয়। আমাদের কাজের সুবিধার জন্য আমরা অনেকেই সফটওয়্যার গুলোর সেটিং নিজের মতো করে কাস্টমাইজ করে থাকি। যখন আমরা কম্পিউটার রিপেয়ারিং করতে দিবো তখন যদি অপারেটিং সিস্টেম ইনস্টল করার দরকার পড়তে পারে তাই আগে থেকেই সেটিং ব্যাকআপ নিয়ে রাখবেন যদি সম্ভব হয়। ঠিক তেমনি গেম প্রেমীরা কিন্তু এই সমস্যা পড়তে পারেন যে একটা গেমের মিশন অর্ধেক এনে রেখে দিয়েছেন পরে ভুলে উইন্ডোজ সেটআপ করতে গিয়ে সব শেষ তাই সাবধান।

৩। অনলাইন অ্যাকাউন্ট রিমুভ বা লগআউট করা

বর্তমান সময় আমাদের নিজেদের প্রতি খেয়াল করার চেয়ে নিজেদের অনলাইন অ্যাকাউন্ট এর দিকে গুরুত্ব দেওয়া বেশি প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। কেন না আমরা সকাল থেকে শুরু করে রাত পর্যন্ত আমাদের ফোন বা কম্পিউটার সঙ্গি করে নিয়েছি। কম্পিউটার আমরা নিজেদের জিমেইল, ফেসবুক সহ অন্যানো সব অন্যান্য অনলাইন অ্যাকাউন্ট গুলো ব্যবহার করে থাকি তাই কম্পিউটার রিপেয়ারিং করতে দেওয়া আগে অবশ্যই সেই গুলো লগআউট করে রাখা উচিত।

 যদি লগআউট করে না রাখেন তাহলে হতে পারি যে ব্যক্তি বা দোকানে আপনার কম্পিউটার রিপেয়ারিং করতে দিয়েছেন সে অ্যাকাউন্ট এ আপনার অনুমতি ছাড়া প্রবেশ করে কোন একটা অঘটন করে ফেলল? তখন কি হবে এমন টা এখন অস্বাভাবিক কিছু নাহ। সাইবার জগতের অ্যাটাক থেকে বাঁচতে হলে এই পদক্ষেপ তা নেওয়া অত্যন্ত জরুরি।

৪। ব্রাউজারে পাসওয়ার্ড সেভ না রাখা

ব্রাউজার আমাদের একটি সুবিধা দিয়ে থাকে সেটা হলো যখন আমরা কোন ওয়েবসাইট লগিন করি তখন পাসওয়ার্ড গুলো সেভ করে রাখা যায় পরবর্তীতে সহজেই টাইপ না করেই লগিন করার জন্য। কিন্তু এটি যেমন আপনার কাজ সহজ করে ঠিক ক্ষতির মুখে রাখে বলে আমি মনে করি আপনার সেভ করে রাখা পাসওয়ার্ড সহজেই বিভিন্ন মাধ্যমে দেখা সম্ভব। তাই ব্রাউজারের ডাটা ক্লিয়ার করে ও পাসওয়ার্ড গুলো আনসেভ করে কম্পিউটার রিপেয়ারিং করতে দিন। কেউ যদি আপনার পাসওয়ার্ড টা নেওয়া চেষ্টা করে তাহলে? তাই আগে থেকে সর্তক থাকা ভালো।

৫। নিজেদের পার্সোনাল ফটো ও ভিডিও সরিয়ে রাখা

আমাদের পার্সোনাল কম্পিউটার মানে সেখানে নিজেদের সহ অন্যান্য লোকের ছবি ভিডিও থাকতে পারে সেই ব্যাপারে আমাদের খেয়াল করা উচিত। অনেকেই আছে তাদের এমন এমন মূহুর্ত ক্যামেরা বন্দী করে রাখে যা অন্যদের কাছে গেলে কাহিনী সৃষ্টি হতে পারে। বিশেষ করে মেয়েরা তাদের ল্যাপ্টপ বা ডেস্কটপ কম্পিউটার যায় হোক না কেন তা রিপেয়ার করার আগে নিজেদের ছবি বা ভিডিও গুলো মুভ করে অন্য জায়গা রাখেবন।

বলা তো যায় না কার মনে কি আছে হয়তো আপনার ছবি গুলো দোকানের কোন ব্যক্তি সংগ্রহ করে আপনাকে ব্ল্যাকমেইল করছে। এই বিষয় টি নিয়ে অনেক মুভি তে দেখা যায় যে কম্পিউটার বা মোবাইল রিপেয়ার এর শপ গুলোর লোকেরা ছবি গুলো সংগ্রহ করে নানা ধরনের হয়রানি করে। আপনি ভাবছেন এটা শুধু মুভি তেই হয়? না বাস্তব জীবনেও এই জিনিস গুলো ঘটে তাই মুভি গুলো এর মধ্যে দিয়ে সর্তকতা বার্তা দিয়ে যায়। তাই এই বিষয়ে খুব সাবধানতা অর্জন করবেন।

এছাড়াও অনেক বিষয় আছে যার প্রতি নজর বা গুরুত্ব রাখা উচিত এবং সেই বিষয় গুলো কি কি সেটা আপনি নিজের কাছে প্রশ্ন করলেই উত্তর পাবেন। আপনার জিনিস আপনি ভালো বলতে পারবেন যে কোনটি অন্যের হাতে চলে গেলে আপনার ক্ষতি হতে পারে। আমি শুধু কমন বিষয় গুলো তুলে ধরেছে যেটি অনেকেই ভুল করে তো আশা করি কম্পিউটার রিপেয়ারিং করতে দেওয়া আগে বিষয় গুলো মাথায় রাখবেন।

আশা করি, কম্পিউটার রিপেয়ারিং করতে দেওয়ার আগে যেসব করণীয় বিষয় সেইগুলো বুঝতে পেরেছেন। আর্টিকেল টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন, ধন্যবাদ।

আরো পড়ুনঃ

কম্পিউটার ভাইরাস প্রতিরোধের উপায়।

ফেসবুক আইডি সুরক্ষিত রাখার উপায়।

কিভাবে কম্পিউটারে সাউন্ড সমস্যার সমাধান করবেন।

Follow Our Facebook Page

বিভিন্ন ধরনে টিপস এন্ড ট্রিক সহ প্রযুক্তি সম্পর্কিত বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের উদ্দেশ্য তৈরী প্রযুক্তি বিদ্যা। টেকনোলজি সম্পর্কিত আর্টিকেল পেতে প্রতিদিন ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট।

Leave a Comment