ফেসবুকে কেনাবেচা করার আগে সর্তকতা অবলম্বন!

ফেসবুকে কেনাবেচা করার আগে আমাদের যেসব সাবধনতা গ্রহণ করা উচিত সেটিই আজ আমাদের আলোচনার বিষয়বস্তু। ফেসবুক একটি সামাজিক মাধ্যমে হলেও এইখানে মানুষ এখন তাদের প্রতিভা, ব্যবসা-বাণিজ্য,  প্রচার-প্রচরনা চালিয়ে যাচ্ছে তাদের টার্গেট কৃত মানুষদের কে নিয়ে। ফেসবুকে বিভিন্ন জিনিস ক্রয়-বিক্রয় হয়ে থাকে বিভিন্ন মাধ্যমে যার মধ্যে কিছু মানুষ সত পথে কাজ করে আবার কিছু মানুষ অসত পথে তাদের থেকে বাঁচানোর জন্য এই ছোট একটি চেষ্টা।

ফেসবুকে কেনাবেচা করার আগে সাবধানতা!

ফেসবুকে পরিচিত-অপরিচিত মানুষদের সাথে চ্যাটিং বা ফেসবুক স্ক্রলিং করা ছাড়াও অনেকেই বিভিন্ন পেজ বা গ্রুপ অথবা কোন ব্যক্তি থেকে কোন জিনিস কিছু কেনা-বেচা করি থাকি। আবার অনেকেই ফেসবুক কেনাবেচা করা ঠিক হবে নাকি এই বিষয় নিয়ে চিন্তা করেন তাদের জন্য এই পোস্ট আশা করি আপনাদের কাজে আসবে।

আসল ফেসবুক প্রোফাইল মালিকের সাথে ডিল করুন

ফেসবুক কারো সাথে কোন কিছু ক্রয় বিক্রয় করার আগে সেই ব্যক্তি প্রোফাইল টি ভালোভাবে পরিদর্শন করুন। যেসব ব্যক্তি ফেসবুকে কেনাবেচা’র নামে মানুষের টাকা নিয়ে সেই উক্ত সার্ভিস বা পণ্য দেয় না তারা সব সময় তাদের আসল পরিচয় গোপন রাখার চেষ্টা করে তাই সর্বদা আইডি টি ভালো করে পরীক্ষা করুন। দেখুন তার আইডি তে সে নিজের ছবি বা অন্য কিছু পোস্ট করে কিনা, রেগুলার এক্টিভিটি আছে কিনা দেখবেন, অন্য লোকেরা তার সম্পর্কে কি বলছে ইত্যাদি পর্যবেক্ষণ করে সিদ্ধান্ত নিন।

আবার অনেকেই আছে তাদের আসল প্রোফাইল বা অন্য কারো প্রোফাইলের মতো হুবহু কপি করে ফেসবুকে কেনাবেচা করে এবং মানুষ প্রতারিত করে। অবশ্যই এই কাজ টি করা উচিত বলে মনে করি আমি তাছাড়া আপনি প্রতারণার শিকার হতেই পারেন আবার নাও হতে পারেন। কোন এক মহাশয় বলেছিলেন “সাবধানতার মার নেয়” 

ফেসবুক গ্রুপে বেচাকেনা করার টিপস এন্ড ট্রিক

কোন কিছু কিনতে বা বিক্রি করতে চাইলে আমরা অনেকেই সেই রিলিটেড গ্রুপ গুলো খুঁজে বের জয়েন হয়ে থাকি এবং Sell/Buy করার পোস্ট দেয়। ফেসবুকে গ্রুপে পোস্ট করার পর আপনার সাথে অনেক মানুষ যোগাযোগ করবেন আপনার জিনিস টি বিক্রয় বা ক্রয় করার জন্য কিন্তু সেখান থেকে আপনাকে সঠিক ব্যক্তি কে খুঁজে বের করতে হবে। কোন ব্যক্তির কাছে ক্রয় বা বিক্রয় করার সময় সেই ব্যক্তি পূর্বে কোন লেনদেন করছে কিনা এবং করলেও ঝামেলা করছে কিনা গ্রুপ থেকে সেটি বের করে নিবে।

সবচেয়ে ভালো ডিল ফাইনাল করার পর ঐ গ্রুপের এডমিনদের নিয়ে লেনদেন সম্পন্ন করা। যেস গ্রুপে এই ধরনের কেনাবেচা হয় তাদের এডমিন প্যানেল সাধারণত দুই জনের মধ্যে লেনদেন সিকিউর করার জন্য কাজ করে। ধরুন আপনি আমার কাছে একটি ওয়েবসাইট কিনবেন দাম ঠিক ঠাক করলেন এখন এডমিনদের নিয়ে মেসেঞ্জারে একটি গ্রুপে করে সেখানে প্রথমে আপনি এডমিন টাকা দিবেন তারপর আমি আপনাকে ডলার পাঠিয়ে দিবো কিন্তু এর মধ্য যদি আমি বা আপনি কোন প্রতারণা করি পন্য/জিনিস না দেয় তাহলে এডমিন টাকা ব্যাক করে দিবে যার যার কাছে। এভাবেই গ্রুপে সর্তকতার সাথে কোন কিছু ক্রয় বা বিক্রয় করবেন।

ফেসবুক পেজ থেক কিছু কেনাবেচা করার আগে

ফেসবুক কে ক্ষুদ্র থেকে শুর করে বড় কোম্পানি গুলো তাদের ব্যবসা করে ফেসবুকে প্রমোট করার মাধ্যমে কারণ এইটা একটি মাধ্যম যার দ্বারা একদম সঠিক কাস্টমারের কাছে পণ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া সম্ভব। আবার অনেকেই প্রমোট করার অর্থ না থাকার কারণে বিভিন্ন ভাবে তাদের পেজে ভিউয়ার নিয়ে এসে সেল করার চেষ্টা করে থাকে। এই সৎ ব্যবসায়ী গুলোর মাঝে কিছু অসৎ লোকেরা মানুষের সাথে প্রতারণা করে বেড়াচ্ছে যেই গুলো থেকে সাবধান হওয়া দরকার আমাদের।

দেখা যায় কোন এক প্রোডাক্ট ফেসবুকে আসল কেউ পছন্দ করতে কিনতে গেল পরে ব্যক্তি টি কি করলে তার টাকা টা মেরে দিয়ে ব্লক করে দেয়। এই রকম ঘটনা আমার পরিচিত লোকের সাথে হয়েছে আর অন্যদের সাথেও হয় এটা আর জানার থাকে নাহ। আবার দেখা যায় যে সার্ভিস বা পণ্য সেল করছে ঠিকই কিন্তু যেই রকম পণ্য দেওয়ার কথা ছিল সেই রকম পণ্য না দিয়ে অন্যরকম কিছু দেয়।

যেসব বিষয়ে নজর দিবেন ফেসবুক পেজ থেকে কেনাবেচা করার সময়ঃ

  • উক্ত ফেসবুক পেজ এর লাইক সংখ্যা কত।
  • পেজ টি তে আগের কোন ক্রেতার রিভিউ আছে কিনা।
  • ঐ পেজ থেকে আপনার ফ্রেন্ড লিস্টের অন্যকেউ কোন কিছু কিনেছে কিনা।
  • যে ফেসবুক পেজ থেকে পণ্য বা সেবা কিনতে যাচ্ছেন তাদের পোস্টে দেখবেন অনেকেই কমেন্ট করে তাদের পণ্য কেমন ছিল। এ জন্য পণ্য বা সেবার নেওয়ার আগে তাদের পোস্টের কমেন্ট চেক করবেন।
  • প্রোডাক্ট টি সম্পর্কে আপনি আপনার মতো করে জিজ্ঞাসা করবেন কিভাবে দিবে, কোন টাইপের জিনিস দিবে, কিভাবে আপনি হাতে পাবেন ইত্যাদি জিজ্ঞাসা করে নিবেন।
  • ফেসবুকে কেনাবেচা করার সময় আরো একটি বিশেষ দিকে নজর দিবেন তারা কিভাবে আপনার সাথে কথা বলছে ,তারা কি কথা বলায় প্রফেশনাল এর মতো কিনা ইত্যাদি বিষয় নজর রেখে পণ্য কিনবেন।

লোভনীয় অফার থেকে বিরত থাকা!

ফেবুকে বিভিন্ন জিনিস ক্রয় বিক্রয় করার সময় আপনি দেখবেন অনেকেই কোন জিনিসের মূল্য যা তার থেকে কম অথবা বেশি প্রাইসে সেল দিচ্ছে তাহলে নিশ্চতে থাকুন যে আপনাকে ধোঁকা দিতে সে প্রস্তুত। আবার যে সবাই কম বা বেশি দামে মানুষ কে ঠকানোর জন্য কিছু দিয়ে থাকে তা নয় অনেক সময় অনেকের টাকার প্রয়োজন পড়ে তাই কম দামে সেল করে থাকে।

এখন আপনাকে একটা উদাহরণ দেয়, ধরুন আপনি ১০ ডলার পেপাল কিনবেন এখন ফেসবুক গ্রুপ বা নিজের টাইম লাইনে পোস্ট দিলেন যে আমি ১০ ডলার কিনতে চাই তখন যদি ওর মধ্যে কোন প্রতারক থাকে সে আপনার কাছে কম দামে বিক্রি করতে চাইবে। কিন্তু যখন আপনি টাকা বিকাশ করবেন তখন সাথে সাথে আপনাকে ফেসবুকে ব্লক করে টাকা মেরে দিয়ে চলে যাবে।

তাই দাম একটু বেশি দিয়ে কিনুন কিন্তু সঠিক মানুষের কাছে কিনুন কারো কাছে টাকা মারা দেওয়ার থেকে। আর ফেসবুকে কেনাবেচা করার আগে আপনার ফ্রেন্ড লিস্টের ভালো পরিচিত লোকদের থেকে জেনে নিবেন যে কেউ বিশ্বস্ত লোক আছে কিনা যা আপনি চাচ্ছেন দিতে পারবেন কিনা।

সাবধান থাকুন সর্তক থাকুন, সাইবার ক্রাইম করা থেকে বিরত থাকুন

আরো পড়ুনঃ

ফেসবুক আইডি সুরক্ষিত রাখার উপায়।

ফেসবুক ও মেসেঞ্জার ডিএক্টিভ করার নিয়ম।

ফেসবুক ফটো ট্রান্সফার করুন Google Photos তে।

প্রযুক্তি বিদ্যার আপডেট পেতে ভিজিট করুন আমাদের ফেসবুক পেজঃ Follow Our Facebook Page

বিভিন্ন ধরনে টিপস এন্ড ট্রিক সহ প্রযুক্তি সম্পর্কিত বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের উদ্দেশ্য তৈরী প্রযুক্তি বিদ্যা। টেকনোলজি সম্পর্কিত আর্টিকেল পেতে প্রতিদিন ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট।

Leave a Comment