কিভাবে শক্তিশালী পার্সওয়ার্ড তৈরী করবেন।

একটি শক্তিশালী পাসওয়ার্ড ই পারে আপনার অনলাইন অ্যাকাউন্ট অসাধু ব্যক্তিদের থেকে রক্ষা করতে। একটি দূর্বল পাসওয়ার্ড অনলাইন বা অফলাইন যেকোন ক্ষেত্রেই ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়ায় তাই পাসওয়ার্ড নির্বাচনে আমাদের সতর্ক থাকা উচিত। তাই এই পোস্ট আমরা জানব কিভাবে শক্তিশালী পাসওয়ার্ড তৈরী করবেন এবং সেই সাথে Password নিবার্চনে কি কি বিষয় লক্ষ্য রাখা উচিত সেটি জানবো।

পাসওয়ার্ড কি?

Password হলো বিভিন্ন শব্দ ও অক্ষরের সমষ্টি যা ব্যবহার করা হয়ে থাকে সঠিক ব্যবহারকারী যাচাইয়ের জন্য এবং যাচাই শেষে ব্যবহারকারীকে প্রবেশ অনুমোদন দিতে। পাসওয়ার্ড দ্বারা যেহেতু একটি নির্দিষ্ট জায়গাতে নির্দিষ্ট ব্যক্তির অনুমোদন নিশ্চিত করা হয়ে থাকে সেই জন্য এটি গোপনীয় রাখার জিনিস। এই থেকে আমরা বলতে পারে পাসওয়ার্ড হলো কিছু গোপন শব্দ,অক্ষর,সংখ্যার বা ক্যারেক্টারের সমষ্টি যা সঠিক প্রবেশ অনুমতি দিতে ব্যবহার করা হয়। এই জন্য একটি বিষয় খেয়াল রাখবেন যখন কোথাও আমরা পাসওয়ার্ড টাইপ করি সেই জায়গা টি Password লিখলে *** এই রকম স্টার হয়ে যায় যাতে অন্য কেউ বুঝতে না পারে বক্সে কি লেখা হচ্ছে।

পাসওয়ার্ড কেন গুরুত্বপূর্ণ?

আমাদের কাছে পাসওয়ার্ড কেন গুরুত্বপূর্ণ সেটি আমরা সবাই জানি তাও আপনাদের কে সরণ করিয়ে দিতে চাই। পাসওয়ার্ড নিয়ে আমাদের যতটা গুরুত্ব থাকা উচিত ততোটা গুরুত্ব ইন্টারনেট ব্যবহারকারী অনেক অংশ সেই গুরুত্ব দেয় না। কিন্তু এই দিকে এই পাসওয়ার্ড নির্বাচনে ভুল করার কারণে আপনার অনলাইন অ্যাকাউন্টের ক্ষতি হওয়া সাথে সাথে আপনার কত তথ্য যে অন্যের হাতে চলে যাবে তা আপনি কল্পনা করতে পারবেন নাহ। আপনার ফেসবুক পাসওয়ার্ড টা যদি কেউ পাই তাহলে কি কি হতে পারে আপনি কল্পনা করতে পারবেন। ফেসবুক আইডি কতটা গুরুত্বপূর্ণ এবং ব্যক্তিগত জিনিস সেটা আপনি ভালো করেই জানেন শুধু ফেসবুক নয় অন্য অ্যাকাউন্ট গুলোও তাই পাসওয়ার্ড এর সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া উচিত।

পাসওয়ার্ড নির্বাচনে সতর্কতা

শক্তিশালী পাসওয়ার্ড নির্বাচনের আগে আমাদের জানতে হবে কোন ধরনের পাসওয়ার্ড গুলো দুর্বল, কোন জিনিস গুলো পাসওয়ার্ড হিসাবে ব্যবহার করা যাবে না তাহলে শক্তিশালী পাসওয়ার্ড তৈরী করতে সুবিধা হবে। নিজের কোন তথ্য পাসওয়ার্ড হিসাবে দিলে আমাদের অ্যাকাউন্ট ক্ষতি হওয়ার চ্যান্স বেশি থাকে। কারণ এইক্ষেত্রে অসাধু ব্যক্তিরা আপনার অ্যাকাউন্টের ক্ষতি করার জন্য প্রথমে আপনার ইনফোরমেশন কালেক্ট করে ঐ গুলো দিয়ে নিজের মতো পাসওয়ার্ড তৈরী একে একে চেষ্টা করবে। এখন ভাবুন এর মাঝে যদি আপনার কোন তথ্য পাসওয়ার্ড হিসাবে থাকে তাহলে কি হবে? তাই নিচের পয়েন্ট গুলো ভালো করে পড়ুন এবং এই গুলো পালন করার চেষ্টা করুন।

যেসব জিনিস পাসওয়ার্ড হিসাবে ব্যবহার করবেন নাঃ

  • নিজের নাম বা পরিবারের কারো নাম ( যদি মনে রাখার ক্ষেত্রে ব্যবহার করে থাকেন তাহলে অবশ্যই একটু উল্টে পাল্টে ব্যবহার করুন)।
  • মোবাইল নাম্বার
  • জন্ম স্থান
  • জন্ম তারিখ
  • ক্লাস রোল ইত্যাদি।

এক কথায় শক্তিশালী পাসওয়ার্ড তৈরী করতে হলে আপনার নিজের তথ্য গুলো পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকতে হবে। যথা সম্ভব আলাদা ধরনের পাসওয়ার্ড ব্যবহার করার চেষ্টা করুন যাতে কেউ অনুমান করতে না পারে।

কিভাবে শক্তিশালী পাসওয়ার্ড তৈরী করবেন?

  • যথা সম্ভব ছোট পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা বাদে বড় দৈর্ঘ্যের পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন।
  • পাসওয়ার্ড বড় ও ছোট হাতের অক্ষরের সমন্বয়ে পাসওয়ার্ড তৈরী করুন।
  • শুধু অক্ষর না ব্যবহার করে সাথে নাম্বার ব্যবহার করুন আগে, পিছে অথবা মাঝে দিয়ে।
  • মনে কাখার জন্য নিজের নাম পাসওয়ার্ড হিসাবে ব্যবহার করলে ডাইরেক্ট নাম না দিয়ে একটু পরিবর্তন করে দিন। যেমনঃ আপনার নাম Ashik তাহলে আশিকের A শব্দ টাকে একটু পরিবর্তন করে দিতে পারেন @ চিহ্ন দ্বারা এবং তার সাথে নাম্বার বা অন্য কিছু এড করে দিলেন।
  • স্পেশ্যাল কারেক্টার যেমনঃ !@#$%^&*() ইত্যাদি ব্যবহার করুন তাতে পাসওয়ার্ড আরো শক্তিশালী হবে।
  • কিছু স্পেশ্যাল কারেক্টার গুলো ইংরেজি অক্ষরের সাথে মিলে যায় যেমনঃ A=@, S=$ এমন কিছু মিল রেখে আপনার পাসওয়ার্ডে ব্যবহার করতে পারেন।

উপরের নিয়ম-কানুন গুলো মেনে যদি পাসওয়ার্ড নিবার্চন করেন তাহলে আশা করি আপনার পাসওয়ার্ড যথেষ্ট পরিমাণ মজবুত হবে এবং কারো অনুমাণের বাইরে হবে।

পাসওয়ার্ড পরীক্ষা করুন

আপনি একটি পাসওয়ার্ড নির্বাচন করলেন এখন এটি কতটা মজবুত কিভাবে বুঝবেন তাই তো? এর জন্য কিছু অনলাইনে পাসওয়ার্ড যেখানে আপনার পাসওয়ার্ড কতটা শক্তিশালী সেটি দেখতে পারবেন। যেমন নিচের ছবিতে দেখছেনঃ

how secure is my password

এখান থেকে চেক করতে পারেন আপনার পাসওয়ার্ড কতটা শক্তিশালীঃ https://howsecureismypassword.net/

একই পাসওয়ার্ড বদ অভ্যাস

অনেকে Strong Password তৈরী করেও আরেকটি ভুল করে বসে সেটি হলো একই পাসওয়ার্ড বিভিন্ন সাইটে ব্যবহার যা খুবই ভয়ানক ব্যাপার। এটি একটি স্বাভাবিক অনুমানের বিষয় যে কেউ আপনার একটি অ্যাকাউন্ট কোন পাসওয়ার্ড পেয়ে প্রবেশ করতে পারলে সে অন্যসব অ্যাকাউন্টেও ঐ একই পাসওয়ার্ড দিয়ে লগিন করার চেষ্টা করবে। এতে যেখানে আপনার একটা অ্যাকাউন্টের ক্ষতি হতো সেখানে অন্যান্য অ্যাকাউন্ট ও ক্ষতির মুখে পড়ে গেল। তাই যথা সম্ভব আলাদা আলদা অ্যাকাউন্ট আলাদা পাওসয়ার্ড ব্যবহার করুন।

যদি পাসওয়ার্ড মনে না থাকে তাহলে কিছু পদ্ধতি ব্যবহার করুন পাসওয়ার্ড মনে রাখার জন্য। যেমন আপনি যে সাইটে অ্যাকাউন্ট করছেন সেই সাইটের নাম বা কিছু অংশ পাসওয়ার্ডে দিয়ে দিতে পারেন মূল পাসওয়ার্ডের সঙ্গে এতে করে মনে থাকবে এবং অ্যাকাউন্ট সিকিউর হবে।

ব্রাউজারে পাসওয়ার্ড সেভ

আমরা অনেকেই ব্রাউজারে পাসওয়ার্ড সেভ করে থাকি যাতে পরবর্তীতে লগিন করতে আবার পাসওয়ার্ড প্রবেশ করানো না লাগে। কিন্তু এটা একটি বদ অভ্যাস মনে করি আমি কারণ ব্রাউজারে সেভ থাকা পাসওয়ার্ড সহজেই দেখা যায়। আপনার অজান্তে যেকেউ এসে পাসওয়ার্ড গুলো দেখে নিতে পারেন এবং আপনার অ্যাকাউন্ট ক্ষতির মুখে যেতে পারে। তাই ব্রাউজারে পাসওয়ার্ড  সেভ করা থেকে বিরত থাকুন কষ্ট হলেও টাইপ করে লগিন করুন।

পাসওয়ার্ড মনে থাকে না কি করব?

আপনার যদি পাসওয়ার্ড মনে রাখতে সমস্যা হয় তাহলে অফলাইনে পাসওয়ার্ড গুলো লিখে রাখতে পারেন বা কোন নোটে অ্যাপে কিন্তু এইসব ও যদি অন্যের হাতে চলে যায় তখন কি করবেন? তাই যথা সম্ভব নিজের মাথায় পাসওয়ার্ড গুলো ধরে রাখার চেষ্টা করুন।

আশা করি, পাসওয়ার্ড টিপস এন্ড ট্রিক গুলো আপনাদের কাজে আসবে এবং আপনি আপনার অ্যাকাউন্টের জন্য সঠিক মজবুত  password তৈরী করতে পারবেন।

টেকনোলজি টিপস এন্ড ট্রিকঃ

ক্লাউড স্টোরেজ কি ? এটি ব্যবহারের সুবিধা।

ইন্টারনেট জগতে যেসব ভুল করা উচিত নয়!

Feature Image Credit: Image by Gino Crescoli from Pixabay

বিভিন্ন ধরনে টিপস এন্ড ট্রিক সহ প্রযুক্তি সম্পর্কিত বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের উদ্দেশ্য তৈরী প্রযুক্তি বিদ্যা। টেকনোলজি সম্পর্কিত আর্টিকেল পেতে প্রতিদিন ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট।

1 thought on “কিভাবে শক্তিশালী পার্সওয়ার্ড তৈরী করবেন।”

Leave a Comment