ফেসবুক পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি

খুব টেনশন হচ্ছে! ফেসবুক পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি! কী করবো? নিজের ফেসবুক পাসওয়ার্ড দেখার উপায় কি আছে? ভুলে যাওয়া ফেসবুক পাসওয়ার্ড কিভাবে খুলবো? জানি এরকম প্রশ্ন, পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে অনেকের মনে আসে।

ফেসবুক নিঃসন্দেহে সবচেয়ে বেশি ব্যবহার হওয়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। যার ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১ বিলিয়নেরও বেশি। মানুষ খুব আনন্দ নিয়ে ফেসবুক ইউজ করে, কম বয়সী মানুষ থেকে বয়স্ক মানুষ অবধি সবাই ফেসবুক চালায়।

তারা বিনোদনের মাধ্যম এবং যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে এটি ব্যবহার করে। তারা যেমন পরিচিত মানুষের সাথে সংযুক্ত থাকে। তেমন অপরিচিত মানুষের সাথে ও সংযুক্ত থাকে, যা একটি নতুন ধারা বয়ে আনে জীবনে।

ফেসবুক যদিও মধুময়; তবে ঝামেলা টা তখনই উদয় হয়, পাসওয়ার্ড ভুলে যাওয়ার কারণে, যখন আমাদের আইডি তে লগ ইন করতে পারিনা। এই ধরনের পরিস্থিতি খুবই টেনশন দিয়ে থাকে।

তবে বেশি চিন্তার কারন নেই,সমস্যা হলে তার সমাধান ও আছে। ফেসবুক পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে তা আবার রিকভার করে আইডিতে লগ ইন করা যায়। এই জন্য কিছু পদ্ধতি মেনে চলতে হয়,যা এই খানে আলোচনা করা হবে। বর্তমানে কিভাবে ফেসবুক আইডি ফিরে পাব লেখাটি পড়তে পারেন।

আলোচনা শুরু করার আগে জেনে নেওয়া যাক, কেন ফেসবুকে লগইন হয় না:

  • যদি কেউ আপনার আইডি হ্যাক করে।
  • আপনি পাসওয়ার্ডে Small Letter ব্যবহার করছেন কিন্তু দেয়ার সময় Capital Letter দিচ্ছেন।
  • কম্পিউটারের ক্ষেত্রে আপনি হয়তো, বাংলা কিবোর্ড লেআউট ব্যবহার করছেন।
  • ফেসবুকের টু ফ্যাক্টর অপশন অন করা থাকলে। কোড দেয়া না পর্যন্ত লগইন করতে পারবেন না।
  • আর সবার শেষে ফেসবুক পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে।

যাই হোক নিচের লেখায় আমরা ফেসবুক পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে কি করব সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবো। প্রথমে বলে নেই, ফেসবুক পাসওয়ার্ড দেখা সম্ভব নয়। তবে আপনি ফেসবুক পাসওয়ার্ড চেঞ্জ করতে পারবেন। এখন এই ফেসবুক পাসওয়ার্ড চেঞ্জ করার উপায় ৩টি নিচে উল্লেখ করলাম।

ও আরেকটি বিষয় আপনি যদি আপনার ব্রাউজারে পাসওয়ার্ড সেভ করে রাখেন তাহলে কিন্তু আপনি আপনার ফেসবুক পাসওয়ার্ড দেখতে পারবেন।

নিজের ফেসবুক পাসওয়ার্ড দেখার উপায়

ফেসবুক পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি, করবেন কী?

পদ্ধতি  ১: ডিফল্ট ইমেইল ব্যবহার করে ফেসবুক পাসওয়ার্ড চেঞ্জ

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় একটি ইমেল বা ফোন নম্বর দেওয়া হয়। যখন আপনি আইডিতে লগ-ইন করতে পারব না। তখন যদি ফেসবুককে সেই ইমেইল আইডি দেওয়া হয়। তাহলে, ফেসবুক পাসওয়ার্ডটি পুনরায় সেট করতে সাহায্য করবে।

আপনার পাসওয়ার্ড ভুলে যাওয়ার কারণে লগ ইন করতে না পারলে, আপনি অবশ্যই Forget Password অপশনে ক্লিক করতে হবে। তারপর ফেসবুক আপনাকে অপশন দিবে ডিফল্ট ইমেইল বা ফোন নাম্বার চুজ করার। আপনি ইমেইল অপ্শন সিলেক্ট করলে, ফেসবুক আপনাকে একটি লিংক পাঠাবে, যার মাধ্যমে আপনি আপনার পাসওয়ার্ড রিসেট করতে পারবেন।

এই কাজটি আপনি ইচ্ছা করলে আপনার ফোন বা ল্যাপটপ যেখানে আপনি সুবিধা বোধ করেন সেখানেই করতে পারবেন।

যদি পিসি বা ল্যাপটপে কাজটি করতে চান, তাহলে আপনাকে ডিফল্ট ইন্টারনেট ব্রাউজার ব্যবহার করে, কম্পিউটার বা ল্যাপটপ থেকে facebook.com ওপেন করতে হবে। আর ফোন হলে, অ্যাপ থেকে করতে পারবেন।

ফেসবুক পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি
ফেসবুক পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি
  • লগইনের নিচে “Forget Password” এ ক্লিক করতে হবে।
  • পরের পেজে, পাসওয়ার্ড পুনরুদ্ধারের জন্য ইমেইলের অপশন আসবে।
  • আপনি ইমেইল অপশন চুজ করলে, ইমেইলে একটি লিংক যাবে। আপনকে আপনার ইমেইলে যেতে হবে। সেখানে গেলে দেখবেন ফেসবুক থেকে একটা মেইল পাঠিয়েছে। সেখানের লিংক এ ক্লিক করে ফেসবুক পাসওয়ার্ড রিসেট করতে হবে।
  • লিংক ক্লিক করার পর ফেসবুক নতুন পাসওয়ার্ড তৈরি করতে বলবে।
  • নিউ পাসওয়ার্ড এবং কনফারম নিউ পাসওয়ার্ড বলে দুটি অপশন আসবে।
  • এখন আপনার মন মত একটি শক্তিশালী পাসওয়ার্ড সেট করতে হবে এবং কনফারম করতে হবে।
  • এরপর থেকে ফেসবুকে লগইন করার সময় সেই পাসওয়ার্ড টাইপ করুন।

শক্তিশালী পাসওয়ার্ডের উদাহরন: [email protected]%2*2##pro – মানে পাসওয়ার্ড ৮ সংখ্যার বেশি হতে হবে এবং Capital Letter, Small Letter, সংখ্য এবং চিহ্নর মিশ্রন থাকতে হবে।

পদ্ধতি ২ : রিকভারি ইমেল ব্যবহার করে ফেসবুক পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করা।

এই কাজটিও একই রকম। ডিফারেন্স শুধু একটি জায়গায় সেটা হল, ফেসবুক পুনরুদ্ধারের জন্য লিংকের বদলে, একটি বিশেষ ৬ সংখ্যার কোড ইমেইল করবে।

  • সেইক্ষেত্রে আপনাকে কোডটি লিখতে হবে। Forget Password এ ক্লিক করার পর, ইমেল দেয়ার পর কোডটি ইমেলে যাবে সেই কোডটি ফেসবুকে কোড চাওয়ার ইনপুট বক্সে পেস্ট করতে হবে।
  • তারপর একটি নতুন পাসওয়ার্ড লিখতে হবে এবং কনফারম করতে হবে।
  • যদি ফোন থেকে কাজটি করেন, তাহলে সরাসরি ফেসবুক অ্যাপ থেকে কাজটি করতে পারব।

এখানেই শেষ। এখন আপনি নতুন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে আপনার ফেসবুকে লগইন করতে পারবেন। যদি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা হয়। তবে এই পদ্ধতিটি অত্যন্ত কর্যকর। কেননা, এতে ফেসবুক অ্যাকাউন্টের জন্য নতুন পাসওয়ার্ড সেট করা যায়।

পদ্ধতি #৩ : ফোন নম্বর ব্যবহার করে ফেসবুক অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড রিসেট করা।

ফেসবুক আইডি ওপেন করার সময়, একটি ফোন নম্বরও দিতে হয়, এইটা আমরা সবাই জানি।

ফেসবুক পাসওয়ার্ড চেঞ্জ
ফেসবুক পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি

ফোন নাম্বারের মাধ্যমে পাসওয়ার্ড রিসেট করতে চাইলে “Forget Password” পেজে থেকে তৃতীয় অপশনে ক্লিক করতে হবে, যেখানে সেন্ড কোড টু দ্যা ফোন নাম্বার লেখা আসবে।

এই ক্ষেত্রে, আপনার ইমেইলের পরিবর্তে আপনার ফোন নম্বরে একটি নিরাপত্তা কোড পাবেন। এর পরে উপরে উল্লিখিত পদ্ধতির মতো একই পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করে ফেসবুক অ্যাকাউন্টের জন্য নতুন পাসওয়ার্ড সেট করতে হবে।

এইজন্য আমি সবাইকে সাজেস্ট করব যে, ফেসবুক আইডি ওপেন করার সময় যে ইমেইল আইডি এবং ফোন নাম্বার দেওয়া হয় সে গুলোর সাথে যথাযথ এক্সেস রাখা উচিত। মানে সেগুলো এক্টিভ রাখতে হবে। তাহলে পাসওয়ার্ড রিসেট করা সহজ হবে।

যদি কোনভাবে পাসওয়ার্ড রিসেট করে পুরনো আইডি রিকভার করা সম্ভব না হয়। তাহলে আরেকটি নতুন আইডি ওপেন করে ফেলাই ভাল। ফেসবুক অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড রিসেট করা আসলেই কত সহজ। এইখানে যতটা সহজ ভাবে পেরেছি, সেভাবেই আলোচনা করার চেষ্টা করেছি। সবচেয়ে ভালো হয় যদি পাসওয়ার্ড মুখস্ত করে রাখা যায়।

আজকাল এমন কিছু সফট ওয়্যার আছে যা, পাসওয়ার্ড সংরক্ষণের কাজ করে, সেখানে আমরা আমাদের পাসওয়ার্ড সেভ রাখতে পারি, যাতে ভুলে গেলে সেখান থেকে সংগ্রহ করতে পারি।

আরেকটা কাজ করা যেতে পারে তা হল, কোন নোটবুকে লিখে রাখা যেতে পারে, যাতে করে ভুলে গেলে সেখান থেকে দেখে নেওয়া যায়। তবে সেক্ষেত্রে অবশ্যই নোটবুক কোথায় রাখা হয়। সে বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে, না হলে আবার সমস্যা হবে।

আরও পড়ুন: ফেসবুক আসক্তি থেকে মুক্তির উপায়-2021।

আসলে কোন এক ভাবে ম্যানেজ হয়েই যাবে ফেসবুকের পাসওয়ার্ড। আরেকটি সাজেশন দেওয়া যেতে পারে, যে ফেসবুকের পাসওয়ার্ড এমনভাবে সেট করা উচিত যাতে ভোলার কোন সম্ভাবনা না থাকে, সেক্ষেত্রে কারোর জন্মদিন বা বিবাহবার্ষিকী বা কারোর নাম এই ভাবে সেট করা হলে ভোলার সম্ভাবনা কম, আর কি।

পরিশেষে

আশা করি, ফেসবুক পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি এই প্রশ্নের উত্তর পেয়ে গিয়েছেন। অনেক কিছু বলে ফেললাম,আপনারা সবাই একটি সুস্থ সামাজিক মাধ্যম পরিচালনা করুন,যাতে করে আপনারা কোন ঝামেলায় না পড়েন এবং মানসিকভাবে বিপর্যস্ত না হন। ফেসবুক আইডি সুরক্ষিত রাখার উপায়।

আসলে এখনকার যুগ ভালনা,তাই খুব দুশ্চিন্তা হয় আর কি। সকল পাঠকের সুস্থতা কামনা করে আজকের লিখার ইতি টানছি। আল্লাহ হাফেজ।

আপনার কি কোন প্রশ্ন আছে?

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে