মোবাইল টাওয়ার কিভাবে কাজ করে

মোবাইলের মাধ্যমে, একস্থানের বার্তা অন্য স্থানে পৌঁছানোর ক্ষেত্রে, গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে মোবাইল টাওয়ার। কিন্তু, মোবাইল টাওয়ার কিভাবে কাজ করে এ নিয়ে কি কোন আইডিয়া আছে?

প্রিয়জনদের সাথে যোগাযোগের দুরুত্ব ঘুচিয়ে দূরকে আপন করে তুলেছে মোবাইল ফোন। বেশ কয়েকবছর আগেও, যেখানে আমরা আমাদের প্রিয়জনের সাথে যোগাযোগের ক্ষেত্র, চিঠির উপর নির্ভরশীল থাকতে হতো। মোবাইল বর্তমানে খুব সহজে, সে স্থান দখল করে নিয়েছে। তাই পরস্পরের সাথে যোগাযোগ স্থাপনের ক্ষেত্রে, মোবাইল ফোন ছাড়া, যোগাযোগের অন্য কোন মাধ্যমকে আপনি কল্পনা করতে পারবেন না। 

বেশ কয়েকবছর পূর্বেও যা ছিল কেবলই কল্পনা, মোবাইল ফোন তা সম্ভব করে দেখিয়েছে মুহূর্তের মধ্যে। কিন্তু আপনাদের মনে প্রশ্ন জাগতেই পারে কিভাবে মাত্র কয়েক সেকেন্ড মধ্যে, আপনার কথা আপনার দূরবর্তী কোন স্থানে অবস্থিত আপনার আত্মীয়স্বজন শুনতে পাচ্ছে? এই সকল কিছু মূলত একটি নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর নির্ভরশীল। আর তা হল মোবাইল টাওয়ার।

মোবাইল টাওয়ার কি?

কোন মোবাইল ফোনের মাধ্যমে, এক স্থানের কথা অন্য স্থানে আদান প্রদানে ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে মোবাইল টাওয়ার। মূলত কথা আদান-প্রদানের ক্ষেত্রে, মোবাইল টাওয়ার একটি মাধ্যমে হিসেবে কাজ করে থাকে। ধরুন আপনি কোন স্থান থেকে যখন কোন নাম্বার ডায়াল করে কল দিবেন তখন সেই সিগনাল টাওয়ারে পৌঁছায়।

আরও পড়ুন: রাডার কিভাবে কাজ করে?

টাওয়ার থেকে সেই সিগনাল প্রধান কেন্দ্রের মধ্যে যায়। প্রধান কেন্দ্র থেকে আপনার ডায়াল-কৃত মোবাইল নম্বরটি সাব ডিভিশনে পৌঁছায়। সেই মোবাইল নম্বরের কাছে প্রদত্ত টাওয়ার মোবাইল নম্বরটি সংযোগ স্থাপন করে সাথে সাথে কল বেজে উঠে সেই ডায়াল-কৃত নাম্বারে। এই প্রক্রিয়াটি খুব দ্রুত সম্পন্ন হয়ে থাকে। মাত্র কয়েক ন্যানো সেকেন্ড এর মধ্যে সম্পন্ন হয়ে থাকে এই কাজটি। কিন্তু যদি কোন ধরণের তথ্য বিভ্রাট কিংবা নেটওয়ার্ক জটিলতা দেখা দেয় তখন তার বিলম্ব ঘটে থাকে।

মোবাইল টাওয়ার কিভাবে কাজ করে?

বেশ কিছু সময় পূর্বে আমরা ব্যবহার করতাম টেলিফোন। টেলিফোন এমন একটি মাধ্যম যার মধ্যে এক ধরনের বিশেষ তার সংযুক্ত ছিল। আমরা যখন টেলিফোনের মাধ্যমে কাউকে কল দিব তার টেলিফোনে সেই তার সংযুক্ত না থাকলে, কল আর অপর প্রান্তে সংযোগ হত না।

কিন্তু আমরা যখন মোবাইল ফোনের মাধ্যমে, পরষ্পরের সাথে কথা বলি তখন কোন ধরণের তার আমাদের প্রয়োজন হয় না। কারণ আমরা যখন মোবাইল ফোনের মাধ্যম কথা বলি, তখন আমাদের কথা মাইক্রোপ্রসেসরের মাধ্যমে ডিজিটাল সিগনালে রুপান্তর হয়ে থাকে। ডিজিটাল সিগনালে রুপান্তর হবার পর, আমাদের মোবাইলে যে এন্টেনা রয়েছে তার থেকে তা ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিকে রুপান্তর হয়ে থাকে।

মোবাইল টাওয়ার কিভাবে কাজ করে (মোবাইল টাওয়ারের ছবি)
মোবাইল টাওয়ার কিভাবে কাজ করে (মোবাইল টাওয়ারের ছবি)

পরবর্তীতে তা আমাদের নিকটাবর্তী টাওয়ারে রুপান্তর হয়ে আমাদের কাংখিত মোবাইল নাম্বারে সিগনাল প্রেরণ করে। সে ব্যক্তি যখন কল রিসিভ করবে, তখন সিগনাল পুনরায় ইলেক্ট্রোমেগনেটিভ ওয়েবে রুপান্তরিত হবে। যখন সিগনাল ইলেক্ট্রোমেগনেটিভ ওয়েবে রুপান্তরিত হবে তখন সে ব্যক্তি আমার কথা শুনতে পারবো।

টাওয়ারে কিন্তু দ্রুত সংযোগ স্থাপন কোন ধরণের মোবাইল ফোন করতে পারে না। বরং পরষ্পরের সাথে সংযোগ স্থাপন এর জন্য আমাদের যে মাধ্যম প্রয়োজন হয় তা হল মোবাইল টাওয়ার

কিন্তু আমরা যে কল দেই সেই কলের অপর প্রান্তের ব্যক্তিকে টাওয়ার কিন্তু খুৃঁজে পায় না। টাওয়ারের এই ধরণের নিজস্ব ক্ষমতা থাকেনা বললেই চলে। বরং এই কাজটি করে থাকে এমএসসি। এমএসসি এর পূর্ণরূপ হল মোবাইল সুইচিং সেন্টার। এলাকাভেদে এমএসসি ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। তাই যখন সিগনাল আপনার কাছে এসে পৌঁছাবে তখন এমএসসি তা কনভার্ট করতে বেশ সাহায্য করে। 

মোবাইল-টাওয়ার-কিভাবে-কাজ-করে-ছবি
মোবাইল-টাওয়ার-কিভাবে-কাজ-করে-ছবি

আমাদের জীবনে বর্তমানে চলার পথে, আমাদের নিত্যসঙ্গী হল একটি মোবাইল ফোন। পরস্পরের সাথে যোগাযোগ, খোঁজ খবর নেওয়া, বার্তা বিনিময়ে করা এই সকল ক্ষেত্রে আমরা ব্যবহার করে থাকি আমাদের মোবাইল ফোনটিকে। কিন্তু মোবাইল ফোনের ইন্টারনাল সংযোগ স্থাপনের ক্ষেত্রে মোবাইল টাওয়ারের ভূমিকা সম্পর্কে আমরা ঠিক কতটা জানি ?

আমাদের বাড়ির আশেপাশে, রাস্তায় আমরা প্রায় সময় মোবাইল টাওয়ার দেখতে পাই। একটি নির্দিষ্ট দুরুত্ব পর পর আমরা মোবাইল টাওয়ারের অবস্থান আমাদের চোখে পড়ে। মূলত আমাদের মোবাইল ফোনের নিরবচ্ছিন্ন সংযোগ স্থাপন নিশ্চিত করা হল মোবাইল টাওয়ারের কাজ। আমরা যে ধরণের স্থানে অবস্থান করি না কেন আমাদের বাসা-বাড়ি, আমাদের কর্মক্ষেত্র কিংবা আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এই সকল ক্ষেত্রে আমাদের মোবাইল নাম্বারটি শুধুমাত্র একটি টাওয়ারকে কেন্দ্র করে অবস্থান করে থাকে। 

আরও পড়ুন: পকেট রাউটার কিভাবে কাজ করে?

অনেকগুলো টাওয়ার আবার একটি সাব ডিভিশনকে কেন্দ্র করে থাকে। তাই যখন আমরা কোন নাম্বারে কল করি, তখন সেই কল টাওয়ারের মাধ্যমে সব ডিভিশনের সিগন্যাল প্রেরণ করে থাকে। যা পরবর্তীতে সেই নাম্বারের নিকটবর্তী টাওয়ারকে জানিয়ে দেওয়া হয়। এইভাবে টাওয়ার এবং সব ডিভিশনের কল্যাণের আমরা আমাদের ডায়াল-কৃত নাম্বারের কথা বলতে পারি।

মোবাইল টাওয়ারের গুরুত্ব

বহুকাল আগে থেকেই মানুষের মধ্যে, পরস্পরের সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা ছিল বেশ সীমিত। মানুষ তার কথা, তার অনুভূতি কাছের মানুষ কিংবা প্রিয়জনদের সাথে বার্তা আদান-প্রদানের ক্ষেত্র ছিল সীমিত। মানুষ তার মনের ভাব, অভিব্যক্তি আদান প্রদানের ক্ষেত্রে, বেছে নিত চিঠি। কিন্তু তখনকার সময়ে, চিঠির প্রচলন খুব সীমিত ছিল।

সে বিধায় মানুষ তার প্রিয়জন, তার আপনজনের সাথে যোগাযোগ করার তেমন কোন মাধ্যম ছিল না বললেই চলে। তাছাড়া একস্থানের চিঠি, অন্যস্থানে পৌঁছাতে প্রচুর সময় প্রয়োজন হতো। তাই পরস্পরের সাথে খবরাখবর আদান-প্রদান নিয়ে বেশ ঝামেলায় পড়তে হত।

মোবাইল টাওয়ার কিভাবে কাজ করে
মোবাইল টাওয়ার কিভাবে কাজ করে

ধীরে ধীরে সময়ের সাথে, প্রযুক্তির কল্যাণে মানুষের পরস্পরের সাথে, যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে বেশ পরিবর্তন সাধিত হয়েছে। বর্তমানে তাই মানুষের পরস্পরের সাথে যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম হিসেবে পরিচিত হল মোবাইল ফোন।

মোবাইল ফোন বর্তমানে এমন একটি যোগাযোগ মাধ্যম যার মাধ্যমে, আপনি ঘরে বসে বিশ্বের যেকোনো প্রান্তের মানুষের সাথে, খুব সহজে এবং মুহূর্তের মধ্যে মনের ভাব আদান-প্রদান করতে পারবেন খুব সহজে। ফলে আমাদের যোগাযোগ ব্যবস্থা সময়ের সাথে সাথে হয়ে উঠেছে সহজ ,সরল এবং গতিশীল।

আরও পড়ুন: আইপি ক্যামেরা কিভাবে কাজ করে?

মোবাইল টাওয়ারকে কাজে লাগিয়ে আমরা এক স্থানের সাথে অন্য স্থানের মানুষের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করতে পারি। মোবাইল টাওয়ার আমাদের যোগাযোগ ব্যবস্থার ক্ষেত্রে একটি অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। এক স্থানের মোবাইল নেটওয়ার্কের সাথে অন্য স্থানের মোবাইল নেটওয়ার্কের সংযোগ স্থাপন এর ক্ষেত্রে মোবাইল টাওয়ার এর কার্যকারিতা অতুলনীয়।

উপসংহার

মোবাইল টাওয়ার আমাদের যোগাযোগ ব্যবস্থার ক্ষেত্রে এক অসাধারণ ভূমিকা স্থাপন করেছে। আশা করি এই লেখা মোবাইল টাওয়ার কিভাবে কাজ করে এই প্রশ্নের উত্তর দিতে সক্ষম হয়েছে। যদি সক্ষম না হয়, তাহলে কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন।

আপনার কি কোন প্রশ্ন আছে?

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে