সি ড্রাইভ ফুল ! কিভাবে সি ড্রাইভের স্পেস বাড়াবেন?

আপনার কম্পিউটারের সি ড্রাইভ কী ফুল হয়ে লাল হয়ে গেছে? এখন সি ড্রাইভসের স্পেস বাড়াতে চাচ্ছেন? তাহলে আজকের এই পোস্ট টি আপনার জন্য কিভাবে সহজে কোন প্রকার প্রয়োজনীয় ফাইল হারানো ছাড়া কিভাবে ড্রাইভের স্পেস বাড়াবেন সেটি এই পোস্ট থেকে জানতে পারবেন।

সি ড্রাইভ ফুল হওয়ার কারণ!

প্রথমত কম্পিউটারের সি ড্রাইভের স্পেস ফুল হয়ে লাল হওয়ার কারণ হচ্ছে আমরা যখন কম্পিউটার কিনি তখন অনেকেই না বুঝে কম্পিউটারের দোকান থেকে সি ড্রাইভের জন্য যে স্পেস বরাদ্দ করে দেয় আমরা সেটি ব্যবহার করে থাকি। আমি অনেক বন্ধু বান্ধবের দেখছি যাদের কম্পিউটারের সি ড্রাইভের স্পেস ৫০ , ৭০, ৮০ জিবি এমন রাখে মানে এক দম ১০০ জিবি এরও কম। যা এই যুগের সফটওয়্যার গেমস ইন্সটল করে রাখার জন্য খুবই কম পরিমাণ স্পেস যার জন্য দু একটা সফটওয়্যার ইন্সটল করার পর দেখা যায় সি ড্রাইভ লাল হয়ে গেছে।

নতুনদের জন্য একটু বলে রাখি C Drive হচ্ছে কম্পিউটারের সিস্টেম ড্রাইভ যেখানে কম্পিউটারের অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল হয়ে থাকে। এছাড়াও কম্পিউটারের সকল সফটওয়্যার বা গেমস ইন্সটল করলে সেটি কম্পিউটারের C Drive এর নির্দিষ্ট ফোল্ডারে গিয়ে জমা হয়। শুধু তাই না কম্পিউটারে ইন্টারনেট থেকে যেই ফাইল ডাউনলোড করি সেটার ডিফল্ট লোকেশন হিসাবে C Drive ই থাকে। আমাদের কম্পিউটারের Desktop, Download , Document, Picture এইসব ফোল্ডার C Drive এর অর্ন্তভূক্ত।

যার কারণে আমরা অনেকেই না বুঝে আমাদের অনেক ফাইল ডেস্কটপ স্ক্রিনে রেখে দেয় যা অন্য ড্রাইভে রাখলেই হয়ে তাহলেই অনেক স্পেস বেঁচে যায়। আবার কম্পিউটারের জমা থাকা কিছু অপ্রয়োজনীয় ফাইলের কারণ C Drive অনেক স্পেস ধরে রাখে। এর ফলে আমরা সার্চ করা শুরু করে দেয় যে  আমার C Drive ফুল! কিভাবে সি ড্রাইভের স্পেস বাড়াবেন? । আর যাদের সি ড্রাইভের নির্দিষ্ট পরিমাণ আছে কিন্তু বাড়াতে চাচ্ছেন তারা এই পোস্ট টি দেখতে পারেন এটি C Drive ছাড়া অন্য ড্রাইভে ও এই পদ্ধতি প্রয়োগ করে স্পেস বাড়িয়ে নিতে পারেন।

কিভাবে সি ড্রাইভের স্পেস বাড়ানো যায়?

সি ড্রাইভের স্পেস বাড়ানোর জন্য আমাদের কয়েক টি পদক্ষেপ নিতে পারি আমাদের সি ড্রাইভের স্পেস ম্যানুয়ালি বাড়াতে পারি কিছু উপায়ে যেটার শুধু অপ্রয়োজনীয় কিছু ছাটায় করে। আর দ্বিতীয় পদ্ধতি হলো আসলেই সি ড্রাইভের স্পেস বাড়িয়ে ধরুন ৬০ জিবি আছে সেটা ১০০ জিবি করে। আপনার ড্রাইভ টি যদি অপ্রয়োজনীয় ফাইলের কারনে ভরে গিয়ে থাকে তাহলে সহজেই এই পদ্ধতিতে অনেক টা স্পেস ফাঁকা করতে পারবেন। আমরা মোট নিত পদ্ধতি তে এটি বাড়াতে পাড়ি। যথাঃ

  1. নতুন করে উইন্ডোজ দেওয়ার সময় পার্টিশন ভেঙ্গে নতুন করে তৈরী করার মাধ্যমে। যেটি করলে হার্ড ডিস্কে রাখা ফাইল হারানোর সম্ভবনা থেকে যায় আবার অনেকেই এই পদ্ধতি তে কাজ করতে পারে নাহ ভুল করে ফেলে।
  2. যদি C ড্রাইভের স্পেস যথেষ্ট থাকে তাহলে অপ্রয়োজনীয় ফাইল রিমুভ করে স্পেস বাড়ানো যেতে পারে।
  3. তিন নাম্বার পদ্ধতি হলো একদম নিরাপদ সফটওয়্যারের মাধ্যমে সহজেই সি ড্রাইভের স্পেস বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

অপ্রয়োজনীয় ফাইল মুছে ফেলেঃ

  • প্রথমে আপনার কম্পিউটারে যেসব অপ্রয়োজনীয় সফটওয়্যার আছে সেই গুলো আনইনস্টল করে দিন।
  • কম্পিউটারের টেম্পোরারি ফাইল গুলো নিয়মি ডিলিট করুন।
  • Download ফোল্ডারে যে ফাইল গূল আছে সেই গুলো Cut করে অন্য ড্রাইভে রাখুন।
  • কম্পিউটারে যদি এমন কোন গেম থাকে যেটি আপনি খেলে গেম ওভার করে ফেলেছেন আর দরকার নেয় সেটি আনইন্সটল করে ফেলুন।
  • উইন্ডোজে Disk Cleanup নামে একটি টুল রয়েছে সেটি বের করে সি ড্রাইভ ক্লিন করুন। অনেক সময় উইন্ডোজ আপডেট করার ফলে পুরাতন উইন্ডোজ জমা থেকে যায় তাই এটি ক্লিন করার সময় ডিলিট হয়ে যাবে।

সফটওয়্যার দিয়ে কিভাবে সি ড্রাইভের স্পেস বাড়াবেন?

১। প্রথমে এই সফটওয়্যা টি ডাউনলোড করে নিন ফ্রি ভার্সন  টি ।  Download

২। সফটওয়্যা টি ডাউনলোড হয়ে গেলে ইন্সটল করুন এবং ইন্সটল হয়ে গেলে সফটওয়্যার টি ওপেন করি নিচের মার্ক করা অপশনে যান ।

mini partitions

৩। তারপর নিচের স্ক্রিনশটের মতো ইন্টারফেস পাবেন আপনি এখন যে ড্রাইভের স্পেস বাড়াবেন সেই ড্রাইভের উপর মাউসের কার্সর নিয়ে মাউসের রাইট বাটনে ক্লিক করলে অনেকগুলো পাবেন আমি যেহেতু সি ড্রাইভের স্পেস বাড়াব তাই C Drive ই মাউস নিয়ে গিয়ে রাইট বাটন ক্লিক করলাম এবং তারপর অনেকগুলো অপশনের মধ্যে থেকে Extend নামে একটি অপশন পাবেন ঐ টাই ক্লিক করুন ।

resize2 1024x795 1

৪।  এরপর দেখুন ১ নাম্বারে চিহ্নিহ অংশ তে এমন একটি ড্রাইভ সিলেক্ট করে দিবেন যেই ড্রাইভ থেকে জায়গা নিয়ে সে সি ড্রাইভ বা অন্য ড্রাইভে জায়গা দিবে , ২ নং স্লাইডার টেনে জায়গার পরিমাণ বাড়াতে কমাতে পারনে আপনি কত টুকু বাড়াবেন ঐটা সেট করে ৩ং Ok তে ক্লিক করুন ।

increase

৫। এখন উপরে বাম কোণায় দেখবেন Apply লিখা আছে ক্লিক করবেন , আমি বাদ বাকি স্ক্রিনশট দিতে পারলাম কারণ আমার সি ড্রাইভের জায়গা যথেষ্ট পরিমাণ আছে আপনারা Apply ক্লিক করার দেখবেন কাজ চলছে অপেক্ষা করবেন এবং যখন শেষ হবে তখন স্ক্রিনে বলে দিবে ।

resize4 1024x795 1

৬। সম্পন্ন কাজ ঠিক মতো হয়ে গেলে আপনাকে কম্পিউটার টা Restart দিতে বলতে পারে যদি বলে তাহলে Restart দিবেন এবং পরে দেখবেন সি ড্রাইভের স্পেস বেড়ে গেছে । চমৎকার !

আশা করি আপনার সি ড্রাইভ ফুল! সমস্যার সমাধান টি পেয়ে গেছেন কিভাবে সি ড্রাইভের স্পেস বাড়াবেন? সেটি শিখে গেছেন । উপরের পদ্ধতি গুলো সফল ভাবে করতে পারলে আপনার সমস্যার সমাধান ১০০% পেয়ে যাবেন।

আরো পড়ুনঃ

VirtualBox Bangla Tutorial | ভার্চুয়াল বক্স কি এবং কেন ব্যবহার করবেন?

ভার্চুয়াল বক্সে Zorin OS Install বা যেকোন লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেম পদ্ধতি।

বিভিন্ন ধরনে টিপস এন্ড ট্রিক সহ প্রযুক্তি সম্পর্কিত বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের উদ্দেশ্য তৈরী প্রযুক্তি বিদ্যা। টেকনোলজি সম্পর্কিত আর্টিকেল পেতে প্রতিদিন ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট।

1 thought on “সি ড্রাইভ ফুল ! কিভাবে সি ড্রাইভের স্পেস বাড়াবেন?”

Leave a Comment